September 19, 2018

সালাহর উদারতায় মুগ্ধ ফুটবলবিশ্ব

Updated: May 31, 2018

  • Share on Facebook
সালাহর উদারতায় মুগ্ধ ফুটবলবিশ্ব

মিসরে মামলা হতে পারে তার নামে৷ লিভারপুল ও মিসরের সমর্থদের চোখে খলনায়ক হতে পারেন সার্জিও রামোস৷ রিয়ালের সেন্ট্রাল ডিফেন্ডারের শাস্তি চেয়ে উয়েফা ও ফিফায় তিন লাখের বেশি সাক্ষর-সংবলিত পিটিশন জমা পড়তে পারে৷ তবে মোহাম্মদ সালাহ কোনোভাবেই কাঠগড়ায় তুলতে রাজি নন স্প্যানিশ তারকাকে৷ বরং খেলোয়াড়সুলভ মনোভাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে নিজের চোট পাওয়াকে নিছক দূর্ঘটনা বলেই মনে করছেন প্রিমিয়র লিগ জায়ান্টদের মিসরীয় স্ট্রাইকার৷

কিয়েভে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালের প্রথমার্ধেই রিয়াল অধিনায়ক রামোসের সঙ্গে ধাক্কায় কাঁধে চোট পান সালাহ৷ যার ফলে মিসরের হয়ে তার বিশ্বকাপ খেলা বড়সড় প্রশ্নের মুখে পড়ে যায়৷ সালাহ নিজে আশাবাদী বিশ্বকাপ খেলার বিষয়ে৷ শেষ পর্যন্ত রাশিয়ায় মাঠে নামা সম্ভব হবে কি না, তা এখনও নিশ্চিত না হলেও চোটের জন্য সালাহ দোষ দিচ্ছেন না রামোসকে৷

মিসরীয় তারকা নিজের চোট নিয়ে এখনো প্রকাশ্যে মুখ না খুললেও লিভারপুলের ফিজিও রুবেন পন্স জানান, রামোসকে নিয়ে তার কাছে একবারের জন্যও অভিযোগ করেননি সালাহ৷ রুবেনের নজরদারিতেই চোট সারিয়ে ওঠার প্রক্রিয়ায় রয়েছেন সালাহ৷

রুবেন জানান, ‘সালাহ একবারের জন্যও রামোসকে নিয়ে কোনে কথা বলেনি৷ আমার মনে হয় না রামোসের উপর সালাহর কোনো রাগ রয়েছে৷ এটাকে নিছক দুর্ঘটনা হিসাবেই গ্রহণ করেছে ও৷’

পন্স আরো বলেন, ‘সালাহর মাঠে পড়ে যাওয়া দেখেই বুঝেছিলাম গুরুতর চোট পেয়েছে ও৷ আমরা ভয় পেয়েছিলাম তখনই৷ ও কষ্ট পেলেও কোনো দোষারোপের রাস্তায় হাঁটেনি৷ আমি শুধু ওকে শান্ত থাকার কথা বলেছিলাম৷ যেটা হয়ে গেছে, তা নিয়ে না ভেবে সমস্যা সমাধানের উপায় খোঁজার দিকে নজর দিতে বলেছিলাম৷ এমনিতে ওর সেরে উঠতে তিন থেকে চার সপ্তাহ সময় লাগার কথা৷ আমরা চেষ্টা করছি তার আগেই যত দ্রুত সম্ভব ওকে ম্যাচ ফিট করে তোলার৷’

চিকিৎসার জন্য ভ্যালেন্সিয়া উড়ে যাওয়া সালাহকে দেখে অবশ্য মিসরীয় সমর্থকরা বাড়তি অক্সিজেন পেতে পারেন৷ কেননা বিমান বন্দরে স্লিং ছাড়াই দেখা গিয়েছে তাকে৷ শরীরি ভাষায় কোনো জড়তা ছিল না৷ সুতরাং ১৫ জুন উরুগুয়ের বিরুদ্ধে মিসরের প্রথম ম্যাচে সালাহর খেলার ক্ষীণ সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে৷

  • Share on Facebook